1. admin@amaderjamalganj.com : amaderjamalganj : amaderjamalganj com
ঈদের আমেজে স্থবিরতা- মো. রবিউল আলম – আমাদের জামালগঞ্জ
মঙ্গলবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২১, ০৪:৪৪ পূর্বাহ্ন
নোটিশ :
সাহিত্য বিকাশে মোরা প্রত্যয়দীপ্ত"আমাদের জামালগঞ্জ " হাওর সাহিত্যের আয়না - আপনিও লিখুনঃ আপনিও হয়ে যান আমাদের জামালগঞ্জ সাহিত্য পত্রিকার একজন নিয়মিত লেখক।যে কোনো ধরনের গল্প,কবিতা পাঠিয়ে দিন আমাদের কাছে আমরা আপনার লেখাটি আমাদের জামালগঞ্জ সাহিত্য পত্রিকায় আপনার নাম উল্লেখপূর্বক প্রকাশ করব। E-mail: amaderjamalganj@gmail.com

ঈদের আমেজে স্থবিরতা- মো. রবিউল আলম

  • আপডেট সময় : শনিবার, ২৩ মে, ২০২০
  • ১৮১ বার পড়া হয়েছে

এবারের ঈদ উদযাপন একটু ভিন্ন মাত্রার। কি ভাবছেন! হাসি খুশি আর অতিরিক্ত আনন্দজনক, অতি উৎসাহ উদ্দীপনা নিয়ে এবারের ঈদ উদযাপন হবে? মোটেই না। এবারের ঈদ উদযাপন কিছুটা দুঃখে’র বেদনা বিধুরে’র। বলতে গেলে সকলেরই অপ্রত্যাশিত একটি উৎসব। হয়তো-বা বলছেন কি এমন হতাশাগ্রস্থ হয়ে এমন লিখছি? ঈদ মানেই তো আনন্দ। ঈদ মানেই তো খুশি। তাহলে এত স্থবিরতা আবার কোথা থেকে এলো? হ্যাঁ, স্থবিরতা! অনেক কাছে’র মানুষকেও দূর থেকে ঈদ উদযাপনে’র মতো চাপা কষ্ট নিয়ে ঈদ উদযাপন করা’র স্বপ্ন এমন স্থবিরতা’র কারন।

বিশ্ব আজ এক দোদুল্যমান অবস্থায় বিরাজ করছে। কারো মনেই প্রশান্তি’র চিহ্ন মাত্র নাই। কোভিড-১৯ বা করোনা মহামারি ভাইরাস আজ বিশ্ববাসীসহ শহর, নগর, বন্দর থেকে শুরু করে প্রত্যন্ত অঞ্চলে’র জনজীবনে স্বাভাবিক চলাফেরায় ব্যাঘাত এনেছে। প্রবল ইচ্ছে থাকা সত্বেও প্রকৃতিকে দেখার জন্য কেউই ঘর হতে বের হচ্ছেন না। এবারে’র ঈদে রেলস্টেশনে টিকিটে’র লাইন আর বাস টার্মিনালে লোকে’র তেমন উপচে পড়া ভিড় নেই। টানা লকডাউন আর মৃত্যু’র মিছিল মানুষকে পঙ্গুত্ব করে রেখেছে। অনেকটা কয়েদী’র মতোই চার দেয়ালে থাকা বন্ধি।

যারা কখনোই পরিবার ছাড়া ঈদ পালন করেন নাই। তারাও হয়তো-বা থেকে যাচ্ছেন নিজ নিজ জায়গায় এবারে’র ঈদুল ফিতরে। ঈদে ফেরা হচ্ছে না আপন নীড়ে, দেখা হচ্ছে না প্রিয় বাবা-মা, ভাই-বোনে’র সাথে। ঈদে গ্রামে’র বাড়ি ফেরার যে প্রবল ইচ্ছে আর উদ্দীপনা, তা কাজ করছেনা কারো’র ভেতরেই। সকলে’র ভেতরেই শঙ্কা। থেকে যাচ্ছে মনের ভেতরেই অজানা আক্ষেপ। কেন, নিয়তির এমন হাল? চোখের কোণে ভেসে উঠছে অজস্র স্মৃতি। হয়তো-বা বোবাকান্না’র শব্দ কেউ শুনতে পাবেনা; কিন্তু ঠিকই চোখে’র কোণা দিয়ে টলমল করে গড়িয়ে পড়বে স্বচ্ছ সাদা পানি। ভিজে যাবে বালিশ।

ঈদুল ফিতর মানেই অতিরিক্ত আনন্দ। কিন্তু এই ঈদে থাকছে না আনন্দে’র অনেক কিছুই। টানা একমাস সিয়াম সাধনার পর ঈদের শপিং/ঈদের কেনাকাটার না হলে যেন ঈদ উৎসবের অপূর্ণতা থেকেই যায়।

করোনা ভাইরাসে’র প্রাদুর্ভাবে এই দুঃসময়ে বেশির ভাগ মানুষেরই ঈদের কোনাকাটা’র তাড়া নেই। শখের পাঞ্জাবি আর পায়জামা হচ্ছে না কেনা। দেয়া হচ্ছে না প্রিয়জনকে পছন্দে’র গিফট। শপিংমল আর বিপণিবিতান গুলো’র সামনে নেই সাজানো গেইট, নেই বাহারি রংয়ের লাইটিং আর উপচে পড়া মানুষে’র জনসমাগম। বাঁকা চাঁদে’র খুশিতে হবেনা আর আতশবাজি’র মহড়া।

আত্মীয় পরিজন আসা যাওয়া হবেনা। ঈদ সেলামী’র থাকবেনা কারো কাছে বায়না। ঈদগাহ মাঠে ঈদের নামাজের বিশাল জামায়েত হবেনা। নামাজ শেষে হবেনা কোলাকুলি কোশল বিনিময়। যেখানে পুরাতন রাগ অভিমান’কে দূরে রেখে, সকল জরা-জীর্ণতাকে পেছনে ফেলে নতুনত্বে’র শপথ নিয়ে যে দিন শুরু হয়। তা আর হবেনা। মূলতঃ ঈদের আনন্দ এসবকে ঘিরেই। কিন্তু এসবের আর কিছুই থাকছে না এবারে’র ঈদে।

চিরচেনা সুর কবি নজরুলে’র ও মন রমজানে’র ঐ রোজা’র শেষে এল খুশি’র ঈদ গানটি হয়তো টেলিভিশনে’র বড় পর্দা আর মোবাইলে’র রিংটোনে বেজে উঠবে কিন্তু মনে আনন্দে’র স্ফুলিঙ্গ হবেনা।

ঈদ উৎসব নিয়ে ধনী-গরীব‚ উচ্চবিত্ত-মধ্যবিত্ত থেকে শুরু করে সব পরিবারেই অনেক ছোট ছোট গল্প থাকে‚ পরিকল্পনা থাকে। করোনা’র প্রাক্কালে হয়তো এমন ছোট ছোট গল্প আর পরিকল্পনা’র কোনটিই বাস্তবায়িত হবেনা। মহামারি ভাইরাসে’র কারনে ধূলিস্যাৎ হয়ে যাবে এমন শত শত গল্প আর পরিকল্পনা।

আমাদের মুসলিম প্রধান দেশে ঈদ’তো কেবল আনন্দে’র উৎসই নয়—এটি মানুষে-মানুষে কাছে আসা’র অনেক বড় এক উপলক্ষ। কিন্তু‚ এই উপলক্ষে হচ্ছেনা মানুষে-মানুষে দেখা। করোনা মহামারি’র কাছেও হেরে গেছে আপন মানুষে’র ভালবাসা। ধনী-গরীবের যে সৌহার্দ সম্প্রীতির মেলবন্ধন। যে ভ্রাতৃত্ববোধে’র সৃষ্টি হয়‚ এতে ঈদ আরও মহিমান্বিত আরও সাফল্যমণ্ডিত হয়ে ওঠে আমাদের জীবনে।

কোভিড–১৯/করোনা ভাইরাস এবার ঈদুল ফিতরে পারস্পরিক সংযোগে’র সেই মেলবন্ধন আর ভ্রাতৃত্ববোধে’র মতো রঙিন সুতাটি কেটে দিল। তবে দূরে থেকেও যেন ঈদের সেই সৌহার্দ্য সম্প্রীতি আর ভ্রাতৃত্ববোধে’র বন্ধন যেন অটুট থাকে, আশাবাদী করোনা একদিন থাকবেনা আমাদের মাঝে, প্রকৃতি তার সঠিক ভারসাম্য ফিরে পাবে। আমরা পাবো সেই প্রত্যাশিত সোনালী দিন। সেই চেষ্টা বা প্রত্যাশা’র কমতি হয়তো কারো’র নেই।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই রকম আরো সংবাদ

  • এই সাইটের  লেখা কপি  করা থেকে বিরত থাকুন।
Design & Development By Hostitbd.Com
error: মামা কপি করা ভালো কাজ না !!